সুনামগঞ্জ, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০

শিক্ষার মান উন্নয়নে আশা’র মত বেসরকারি সংগঠনগুলোর এগিয়ে আসা প্রয়োজন- জেলা প্রশাসক

শিক্ষার মান উন্নয়নে আশা’র মত বেসরকারি সংগঠনগুলোর এগিয়ে আসা প্রয়োজন- জেলা প্রশাসক

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
দক্ষিণ সুনামগঞ্জে-এ বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আশা’র আয়োজনে শিক্ষা সেবিকা সম্মেলন ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ৯ ঘটিকায় এফআইভিডিবি’র কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষন কেন্দ্র, শান্তিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ-এ আশার ডিরেক্টর জনাব হামিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ। এ সময় তিনি বলেন শিক্ষার মান উন্নয়নে আশা’র মত বেসরকারি সংগঠনগুলোর এগিয়ে আসা প্রয়োজন। তিনি আরোও বলেন হাওড় অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের জন্য ছাতা, যাতায়াতের জন্য নৌকা, স্কুল ব্যাগ সহ বিভিন্ন শিক্ষা সামগ্রী বিতরণের আহ্বান জানান। তিনি আশা’র বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। আশা’র এডিশনাল ডিভিশনাল ম্যানেজার মোঃ কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেবুন নাহার শাম্মী, সুনামগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জিল্লুর রহমান, আশার এ্যাসিসটেন্ট ডিরেক্টর মোঃ নজরুল ইসলাম, আশা-সিলেট ডিভিশনের ডিভিশনাল ম্যানেজার ইসকান্দার মীর্জা, এডিশনাল ডিভিশনাল ম্যানেজার আবু তাহের চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলার ডিস্ট্রিক্ট ম্যানেজার জনাব পূর্ণেন্দু গোস্বামী, করে। দিনব্যাপী সম্মেলনে জেলার ১২০ টি শিক্ষা কেন্দ্রে কর্মরত শিক্ষা সেবিকাসহ আশা’র সুনামগঞ্জ জেলার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার, শিক্ষা কর্মকর্তা ও সুপারভাইজারগণ অংশ নেন। সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে আশার ডিরেক্টর জনাব হামিদুল ইসলাম বলেন, আশা ২০১১ সাল থেকে সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সহায়তা ও ঝরে পড়া রোধে “প্রাথমিক শিক্ষা শক্তিশালীকরণ কর্মসূচীর” আওতায় দেশের ৬৪ জেলায় ১২৫০টি আশা ব্রাঞ্চে ১৮৯৫০টি শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে দরিদ্র পরিবারের পাচঁ লাখের বেশি শিশু প্রি-প্রাইমারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীতে অধ্যায়ণরত শিক্ষার্থীকে শিক্ষা সহায়তা প্রদান করছে। এর মধ্যে সুনামগঞ্জ জেলায় ২১০টি শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে ৫২৮১ জন শিশুকে শিক্ষা সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। চলতি বছরে জেলার বাংলাবাজার ব্রাঞ্চের ১৫টি শিক্ষা কেন্দ্রকে ৫ম শ্রেনীতে উন্নিত করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে শিক্ষা সেবিকা দায়িত্ব পালন করছেন। প্রাথমিক পর্যায়ের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়া হ্রাস করা, নিম্ম ও নিম্ম মধ্যবিত্ত পরিবারের শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ের দেয়া পাঠ আয়ত্ব করতে সহায়তা করা, প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষার মান উন্নয়নে সহায়তা প্রদান করা, প্রাক-প্রাথমিক পরিচর্যার মাধ্যমে প্রাথমিক স্তরে ভর্তির জন্য নতুন শিক্ষার্থীদের প্রস্তুত করাই হচ্ছে আশা প্রাথমিক শিক্ষা শক্তিশালীকরণ কর্মসূচীর মূল উদ্দেশ্য।

নিউজটি শেয়ার করুন
© দৈনিক আজকের সুনামগঞ্জ
বাস্তবায়নে : Avo Creatives