Logo
সোমবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং ৭ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ২৪শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

জগন্নাথপুরে শতকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে নতুন আরেকটি বিদ্যুৎ সাব স্টেশন

জগন্নাথপুর অফিসঃ
জগন্নাথপুরে শতকোটি টাকা ব্যয়ে আরেকটি বিদ্যুৎ সাব স্টেশন নির্মাণ হতে যাচ্ছে। এ সাব স্টেশনটি নির্মাণ হলে জগন্নাথপুরে কোন বিদ্যুৎ বিভ্রাট থাকবে না। থাকবে না লো ভোল্টেজ সমস্যা। কমে যাবে লোড শেডিং ও গ্রাহক ভোগান্তি। বর্তমানে সিলেট থেকে জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ সরবরাহ হচ্ছে। নতুন সাব স্টেশনটি নির্মাণ হলে সুনামগঞ্জ থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ হবে। দুই দিক থেকে সুবিধা বাড়লে জগন্নাথপুরে আর বিদ্যুৎ বিভ্রাট থাকবে না। জানাগেছে, ১৯৮৪ সালে সিলেটের বড়ইকান্দি থেকে জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ সংযোগ আসে। প্রথমে গ্রাহক সংখ্যা কম থাকলেও পরে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে বিদ্যুৎ সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করে। লো ভোল্টেজ সমস্যায় জর্জড়িত ছিলেন গ্রাহকগণ। বিদ্যুৎ থাকলেও কাজে আসছিলো না। এ সমস্যা সমাধানে স্থানীয় স্লুইচ গেইট নামক স্থানে পরিকল্পমন্ত্রী এমএ মান্নানের প্রচেষ্টায় ২০১৩ সালে বিদ্যুৎ সাব স্টেশন স্থাপন হয়। এর পর থেকে লো ভোল্টেজ সমস্যা দুর হলেও ঘনঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাট চলছে। এ সমস্যা সমাধানের লক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় এবং পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিবিদ সিদ্দিক আহমদের প্রচেষ্টায় জগন্নাথপুর পৌর শহরের ভবের বাজার এলাকায় আরেকটি নতুন বিদ্যুৎ সাব স্টেশন নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সাব স্টেশনের জায়গা নির্ধারণ হয়ে গেছে। জমি অধিগ্রহণের বরাদ্দ এসে গেছে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকে কাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। কাজ শেষ করতে প্রায় এক বছর সময় লাগতে পারে। এদিকে-নতুন সাব স্টেশনের কাজ শুরু হওয়ার আগেই পুরনো সাব স্টেশনের সংস্কার ও লাইনের পুরনো তার পাল্টে নতুন তার টানার কাজ চলছে। নিজেকে নতুন করে সাজাতে এসব কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে জগন্নাথপুর বিদ্যুৎ অফিস। যে কারণে ইদানিং ঘনঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাট হচ্ছে। এ ব্যাপারে ১৩ জানুয়ারি সোমবার জগন্নাথপুর আবাসিক প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) আজিজুল ইসলাম আজাদ বলেন, বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা প্রকল্প সিলেট এর অধীনে শতকোটি টাকা ব্যয়ে জগন্নাথপুরে ৩৩/১১ কেভি ক্ষমতা সম্পন্ন আরেকটি নতুন বিদ্যুৎ সাব স্টেশন হচ্ছে। বর্তমানে সিলেট থেকে জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ সরবরাহ হচ্ছে। নতুন সাব স্টেশনটি চালু হলে সুনামগঞ্জ গ্রিড থেকে বিকল্প সংযোগ হবে। এতে আমরা দুই দিক থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ পাবো। তখন এক লাইনে বিদ্যুৎ সমস্যা হলে অন্য লাইন দিয়ে চলবো। তাই বিদ্যুৎ বিভ্রাট আর থাকবে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে ভবের বাজার এলাকায় নতুন সাব স্টেশনের কাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। কাজ শুরু হলে এক বছরের মধ্যে শেষ হতে পারে। যে কারণে বর্তমানে পুরাতন সাব স্টেশন সহ লাইনে নতুন তার টানার সংস্কার কাজ চলছে। এ জন্য গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। তবে নতুন সাব স্টেশন চালু হলে জগন্নাথপুরে আর কোন বিদ্যুৎ বিভ্রাট থাকবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন