Logo
মঙ্গলবার ১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ১৬ই সফর, ১৪৪১ হিজরী

সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি রতন কে নিয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ৩ উপজেলায় বিক্ষোভ

তৌহিদ চৌধুরী প্রদীপঃ
সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপির বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ জেলা আ’লীগের প্রতিনিধি সম্মেলনে ধর্মপাশা উপজেলা আ’লীগ নেতা শামীম আহম্মেদ মুরাদের (এক সময় এমপির পিএস পরিচিত) বক্তব্যের প্রতিবাদে জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা, মধ্যনগর ও তাহিরপুর উপজেলায় আ’লীগ নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মানববন্ধ করেছে। গতকাল জামালগঞ্জে শেখ রাসেল শিশু কিশোর সাংস্কৃতিক পরিষদ একাডেমির উদ্দ্যোগে উজেলা পরিষদ গেইটের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে শেখ রাসেল শিশু কিশোর সাংস্কৃতিক পরিষদ জামালগঞ্জ শাখা একাডেমির সভাপতি মোঃ আলী হোসেন রাজ’র সভাপতিত্বে প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখেন, জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আল আজাদ। বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আঃ লীগের যুগ্ম সম্পাদক কাজী আশরাফুজ্জামান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল আওয়াল, আঃ লীগ নেতা রিয়াজ উদ্দিন প্রমুখ। প্রধান অথিতি বলেন, তিন বারের নির্বাচিত সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্নিত হয়ে কিছু স্বার্থন্নেষী কুচক্রী মহল তার বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট অপপ্রচার ও ষরযন্ত্র শুরু করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দ, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জামালগঞ্জ শাখা রাসেল শিশু কিশোর সাংস্কৃতিক পরিষদ একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মাসুক মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক জহির উদ্দিন, কামাল, সুবল দাস, মাসুক তালুকদার, মজিব, কাইয়ুম, ইয়াছির আরাফাত প্রমুখ। উপস্থিত সকলেই উক্ত অপপ্রচার ও ষরযন্ত্রের নিন্দা জানান। তবে এই প্রতিবাদে আ’লীগের উপজেলা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ কর্ণধাররা উপস্থিত না থাকায় জনমনে সমালোচনা চলছে। না প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন বলেন, যারা এমপির দেয়া টিআর,কাবিখাসহ সব সুযোগ গ্রহণ করে তারা তো কেউই প্রতিবাদ করেননি। তারা সুযোগ সন্ধানী হয়ে আছে। শ্যাম রাথি না কুল রাখি অবস্থায়। ওরা তৃণমূল নেতাকর্মীদের কাছে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।
অপর দিকে, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে নিয়ে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে তাহিরপুরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুরে উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা এই কর্মসূচির আয়োজন করেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে বাদাঘাটের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক এমাদ আহমেদ জয়, যুবলীগ নেতা সুহেল আহমেদ, কবির হোসেন, ফারুক আহমেদ রনি, কৃষকলীগ নেতা আব্দুন নুর, ছাত্রলীগ নেতা রাহাত হায়দার প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, সরকারের চলমান উন্নয়ন ও একই সাথে তিনবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের তৃণমূলে জনপ্রিয়তা ও ক্লিন ইমেজে ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল অপপ্রচার চালাচ্ছে। এ সমস্ত অপপ্রচার রুখে দাঁড়াবে আওয়ামী পরিবারের নিবেদিত প্রত্যেক নেতাকর্মী। সংসদ সদস্যের নিজ এলাকা ধর্মপাশায় প্রতিবাদ সভা ডাকলে তার বিদ্রোহী গ্রুপ শামীম আহম্মেদ মোরাদসহ কয়েকজন নেতাকর্মীরা একটি সভা আহবান করে। এ কারণে ধর্মপাশায় ১৪৪ ধারা জারি হয়। তবে এমপি রতনের পক্ষ থেকে ধর্মপাশা উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিছ ও দলীয় নেতৃবৃন্দ সংবাদ সম্মেলন করে এমপির বিরোদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানন।

নিউজটি শেয়ার করুন